Breaking

Friday, August 14, 2020

Life Science Questions Answers Part-2 | জীবন বিজ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য এবং সমস্ত চাকুরীর পরীক্ষার জন্য

Life Science Questions Answers Study4Crack is the best place to prepare for any competitive exams. Its provides you competitive exam special study materials, Current Affairs. Study Materials are based on West Bengal Police exams, Indian Railway exams, West Bengal PSC exam, Civil Services exams, Indian post Job Exams, Ssc, Upsc, Rbi, Group-D exams or any kind of State or Central Govt. exams.  Read and Download Daily, Monthly and Yearly Current Affairs From Study4Crack and Prepare for various competitive exams like banking, wbcs, upsc, wbp, psc, ssc. You Can also download GK, Gi, Math Question-papers, Syllabus,  etc in Pdf format, free of cost on our website. Visit Study4Crack to get job notifications, Current Affairs and Study materials and update yourself. Today We Provide Life Science Questions Answers  In Bengali Part-2 series.
class 10 life science questions and answer
 জীবন বিজ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর

জীবন বিজ্ঞান প্রশ্ন ও উত্তর পর্ব- ২

বিষয় :- কোশ-বিভাজন ও জীবনের প্রবাহমানতা



1. DNA বিহীন একটি কোশের উদাহরণ দাও।

 তামাক পাতার রোগসংক্রমণকারী ভাইরাস Tobacco mosaic virus-DNA নেই কেবল RNA থাকে।



2. RNA–এর পুরো নাম কী?

 রাইবোনিউক্লিক অ্যাসিড।


3. RNA কয় প্রকার, কী কী?
 RNA প্রধানত তিন প্রকার। যথা
  • পরিবাহক RNA (transfer RNA) বা t-RNA,
  • বার্তাবহ RNA (messenger RNA) বা m-RNA,
  • রাইবোজোমাল RNA (ribosomal RNA) বা r-RNA
4. জিন কাকে বলে?
 ক্রোমোজোমস্থিত অতি শক্তিশালী, স্ব-বিভাজনশীল, সাধারণ অণুবীক্ষণ যন্ত্রে দেখা যায় এরূপ একটি উপাদান, যা বংশগতির ধারক ও বাহক, অর্থাৎ বংশগত গুনাবলী ও বৈশিষ্ট্য পরিবহনযোগ্য জৈব একককে জিন বলে।

5. জনন কথার অর্থ কী?
 বংশবিস্তার।

6. মিউটেশান (Mutation) কী?
 জিনগুলি সাধারণতঃ সুস্থায়ী এবং বংশ-পরম্পরায় নিজস্ব গুণাবলী বজায় রেখে থাকে; তবে অনেক সময় জিনের পরিবর্তন ঘটে, একে মিউটেশান বলে।

7. মিউট্যান্ট জিন (Mutant gene) কী?
 পরিবর্তিত জিনকে বলে মিউট্যান্ট জিন।

8. লিথ্যাল জিন (Lethal gene) বলতে কী বোঝ?
 ক্ষতিকারক মিউট্যান্ট জিনকে লিথ্যাল জিন বলে।

9. জিনের মিউটেশানের সম্ভাব্য কারণগুলি কী?
➥ জিনের মিউটেশান রঞ্জনরশ্মি, গামারশ্মি, আলট্রা-ভায়োলেট রশ্মি দ্বারা ঘটে থাকে।

10. অ্যামাইটোসিস কাকে বলে?
➥ যে সরলতম প্রক্রিয়ায় কোনো জনিতৃ কোশ নিউক্লিও পর্দার অবলুপ্তি না ঘটিয়ে, ক্রোমোজোম ও বেমতন্তু গঠন ব্যতিরেকে নিউক্লিয়াস ও সাইটোপ্লাজমে সরাসরি বিভাজিত হয়ে দুটি অপত্য কোশ সৃষ্টি করে, তাকে অ্যামাইটোসিস বলে।

11. অ্যামাইটোসিস কোথায় দেখা যায়?
➥ ব্যাকটেরিয়া, ইস্ট, অ্যামিবা ইত্যাদি এককোশী জীবদেহে অ্যামাইটোসিস দেখা যায়।

12. অ্যামাইটোসিস কয় প্রকার ও কী কী?
 অ্যামাইটোসিস প্রক্রিয়াকে বিভিন্ন পদ্ধতিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। যেমন
  • কোরকোদ্গম বা মুকুলোদ্গম (Budding),
  •  অবাধ কোশগঠন (Free Cell Formation)
13. অ্যামাইটোসিসের তাৎপর্যগুলি উল্লেখ কর।
 অ্যামাইটোসিসের তাৎপর্যগুলি হল
  1. ১৮৯২ খ্রীষ্টাব্দে স্ট্রাসবারজার (Strasburger) বলেন, অ্যামাইটোসিসই উন্নত পর্যায়ের কোশ-বিভাজন অর্থাৎ মাইটোসিস-এর সূত্রপাত।
  2. বহুক্ষেত্রে ক্ষয়িষ্ণু জীবনীশক্তিসম্পন্ন কোশে অ্যামাইটোসিসই একমাত্র বাঁচার মাধ্যম।
  3. উন্নত শ্রেণির জীবের ক্ষেত্রে অ্যামাইটোসিস পদ্ধতিটি স্বভাবতই বিরল; কিন্তু তবুও কখনও কখনও অস্তিত্ত্ব বজায় রাখতে অ্যামাইটোসিস পদ্ধতিটিই অত্যন্ত কার্যকরী হয়ে থাকে।

14. মাইটোসিস বলতে কী বোঝ?
 যে জটিল ও ধারাবাহিক প্রক্রিয়ায় কোনো দেহ মাতৃকোশের নিউক্লিয়াস ও সাইটোপ্লাজম একবার মাত্র বিভাজিত হয়ে সমআকৃতি, সমগুণ ও সমসংখ্যক ক্রোমোজোমসহ দুটি অপত্য কোশ সৃষ্টি করে তাকে মাইটোসিস বলে।

15. কে প্রথম মাইটোসিস কথাটি ব্যবহার করেন?
 ১৮৮০ (মতান্তরে ১৮৮২) খ্রীষ্টাব্দে বিখ্যাত জার্মান বৈজ্ঞানিক ওয়াল্টার ফ্লেমিং।

16. মাইটোসিস কোথায় দেখা যায়?
 মাইটোসিস কোশ বিভাজনের প্রধান স্থান হল উদ্ভিদ ও প্রাণীর দেহকোশ। বিশেষ করে
  1. উদ্ভিদের বর্ধনশীল অঙ্গে, যেমন কাণ্ড, ও মূলের অগ্রভাগে, বর্ধনশীল পাতায়, ভ্রূণমূল ও ভ্রূণমুকুলে,
  2. দ্বিবীজপত্রী উদ্ভিদের গৌণ বৃদ্ধির সময় মাণ্ড ও মূলের বিশেষ ধরণের ভাজক কলায়,
  3. উচ্চতর প্রাণীদের ভ্রূণের পরিস্ফূটনকালে এবং দেহের বৃদ্ধির সূচনা থেকে বার্ধক্যের পূর্ব পর্যন্ত,
  4. নিম্নশ্রেণির উদ্ভিদ ও প্রাণীদের বৃদ্ধির সম এবং অঙ্গজ জনন ও অযৌন জননের সময়।

17. মাইটোসিসের কয়টি দশা ও কী কী?
 চারটি দশা। প্রোফেজ, মেটাফেজ, অ্যানাফেজ ও টেলোফেজ।

18. প্রফেজ কী?
 মাইটোসিসের যে দশায় ক্রোমাটিড কুণ্ডলাকৃতি ধারণ করে, নিউক্লিওলাস ও নিউক্লিয় পর্দার বিলুপ্তি ঘটে এবং স্পিনডল গঠিত হয়, তাকে প্রোফেজ বলে।

19. মেটাফেজ কী?
 মাইটোসিস বিভাজনের যে পর্যায়ে ক্রোমাজোমগুলো নিরক্ষীয় তলে বিন্যস্ত হয়ে থাকে, সেই পর্যায় বা দশাকে মেটাফেজ বলে।

20. অ্যানাফেজ কাকে বলে?
 মাইটোসিস বিভাজনের যে দশায় অপত্য ক্রোমাজোম অর্থাৎ ক্রোমাটিড নিরক্ষীয় অঞ্চল থেকে মেরুতে উপস্থিত হয়, তাকে অ্যানাফেজ বলে।

21. টেলোফেজ কাকে বলে?
 মাইটোসিস বিভাজনের যে দশায় অপত্য নিউক্লিয়াস সংঘটিত হয়ে থাকে, অর্থাৎ একটি মাতৃ-নিউক্লিয়াস থেকে দুটি অপত্য নিউক্লিয়াস গঠিত হয়, তাকে টেলোফেজ বলে।

22. বেমতন্তু কী?
 সেন্ট্রিওল দুটি যখন পরস্পর থেকে বিপরীত অঞ্চলে স্থানান্তরিত হতে থাকে তখন তাদের মাঝখানে একপ্রকার তন্তুর আবির্ভাব ঘটে, তাদেরকে স্পিনডল ফাইবার বা বেমতন্তু বলে।

23. অ্যাসট্রাল রশ্মি কী?
 সেন্ট্রিওলদ্বয়ের চারপাশে অবস্থিত স্বল্প দৈর্ঘ্যের বিচ্ছুরিত রশ্মিগুলিকে অ্যাসট্রাল রশ্মি বলে।

24. অ্যাস্‌টার কী?
 অ্যাস্‌ট্রাল রশ্মিসহ সেন্ট্রিওলকে বলে অ্যাস্‌টার।

25. কন্টিনিউয়াস ফাইবার বা অবিচ্ছেদ্য তন্তু কী?
  মেটাফেজ দশায় ক্রোমোজোমগুলি স্পিনডল বা বেমযন্ত্রের নিরক্ষীয় অঞ্চলে অবস্থান করে। স্পিনডল দুই প্রকারের তন্তু সহযোগে গঠিত। এদের মধ্যে একটিকে বলে কন্টিনিউয়াস ফাইবার বা অবিচ্ছেদ্য তন্তু।
26. ক্রোমোজোমাল ফাইবার বা ক্রোমোজমীয় তন্তু কী?
 মেটাফেজ দশায় ক্রোমোজোমগুলি স্পিনডল বা বেমযন্ত্রের নিরক্ষীয় অঞ্চলে অবস্থান করে। স্পিনডল দুই প্রকারের তন্তু সহযোগে গঠিত। এদের মধ্যে একটিকে বলে কন্টিনিউয়াস ফাইবার বা অবিচ্ছেদ্য তন্তু। অপরটিকে বলে ক্রোমোজোমাল ফাইবার বা ক্রোমোজমীয় তন্তু।

27. নিরক্ষীয় প্লেট বলতে কী বোঝ?
 ক্রোমাজোমের সেন্ট্রোমিয়ার ও সেন্ট্রোজোমের বিকর্ষণের ফলশ্রুতিতে ক্রোমাজোমগুলি স্পিনডলে আড়াআড়িভাবে যে মধ্যরেখায় সজ্জিত হয়ে থাকে তাকে ইক্যুয়েটোরিয়াল প্লেট বা নিরক্ষীয় প্লেট বা মেটাফেজ প্লেট বলে।

28. অপত্য ক্রোমোজোম বলতে কী বোঝ?
 অ্যানাফেজ দশায় প্রতিটি ক্রোমোজোম থেকে উৎপন্ন ক্রোমাটিড দুটি বেমযন্ত্রের দুই বিপরীত মেরুর দিকে চলতে শুরু করে। উৎপন্ন ক্রোমাটিডগুলিকে অপত্য ক্রোমাজোম বলে।

29. ইন্টারফেজ দশার বৈশিষ্টগুলি উল্লেখ করো।
 1. ইন্টারফেজ দশায় কোশের আয়তন সর্বাধিক বৃদ্ধি পেয়ে থাকে।
    2. নিউক্লীয় আবরণী যথাযথ অর্থাৎ অক্ষত থাকে।
    3. বিভাজনকালে প্রয়োজনীয় শক্তি ইণ্টারফেজ দশায় সঞ্চিত হয়ে থাকে।
    4. নিউক্লিয়াসটি অপেক্ষাকৃত স্পষ্ট ও বড় হয়ে থাকে।
    5. সংশ্লেষের ফলে ক্রোমাজোমে DNA এর পরিমাণ দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়ে থাকে।
    6. অস্পষ্ট লম্বালম্বা ক্রোমাটিন সূত্র নিউক্লিওপ্লাজমে মিশে থাকে।
    7. ক্রোমাসেণ্টার স্পষ্টতর হয়ে থাকে।
    8. প্রাণিকোষের সেন্ট্রোজোমে দুটি সেন্ট্রিওল স্পষ্টতর হয়ে থাকে।

30. সাইটোকাইনেসিস বলতে কী বোঝ?
 উদ্ভিদ ও প্রাণিকোষে এক বিশেষ পদ্ধতিতে সাইটোপ্লাজমের বিভাজনকে সাইটোকাইনেসিস বলে।

31. সেল-প্লেট (Cell-plate) কী?
 টেলোফেজ দশার অন্তিম সময়ে নিরক্ষীয় অঞ্চলে ফ্রাগমোপ্লাস্ট নানা প্রকার কোষ-প্রাকার উপাদান সূক্ষ্মাতিসূক্ষ্ম বিন্দু আকারে জমা থাকার ফলে যে পাতের মত অংশ গঠিত হয় তাকে সেল প্লেট বা কোষভাগপ্রাকার বলে।

32. মাইটোসিসের বৈশিষ্ট্য বা প্রয়োজনীয়তাগুলি উল্লেখ করো।
 ১। মাইটোসিস একটি সদৃশ বিভাজন, কারণ উৎপন্ন অপত্য নিউক্লিয়াস দুটি মাতৃ নিউক্লিয়াস এর মত হুবহু সমপরিমাণ, সমআকৃতি ও সমগুণসম্পন্ন।
২। উৎপন্ন অপত্য নিউক্লিয়াস এবং ক্রোমোজোমের সংখ্যা এবং উপাদান মাতৃ-নিউক্লিয়াসের সমান।
৩। ক্রোমোজোমে অবস্থিত জিনগুলিও সমান দুভাগে বিভক্ত হয় ফলে পিতা মাতার দোষ-গুণ বৈশিষ্ট্য সমানভাবে এবং সম্যকরূপে সন্তান-সন্ততির উপর বর্তায়।
৪। মাইটোসিস প্রক্রিয়ায় উৎপন্ন উদ্ভিদ এবং প্রাণিদেহে প্রতিটি কোষের নিউক্লিয়াসে সমান গুণসম্পন্ন ও সমান-সংখ্যক ক্রোমোজোম থাকে।
৫। মাইটোসিস বহুকোষী উদ্ভিদ এবং প্রাণীর দৈর্ঘ্য ও আয়তন বৃদ্ধি অর্থাৎ দেহের বৃদ্ধি ও পরিস্ফুটনের জন্য একান্ত অপরিহার্য।
৬। জীবদেহের ক্ষতস্থান পুনর্গঠিত হয় মাইটোসিসের মাধ্যমে।

33. মাইটোসিসকে সদৃশ বিভাজন বা সমবিভাজন বা Equational Division বলার কারণ কী?
 মাইটোসিস কোশ বিভাজনের সময় একটি মাতৃকোশ থেকে সমআকৃতি, সমগুণসম্পন্ন এবং সমসংখ্যক ক্রোমোজোমবিশিষ্ট দুটি অপত্য কোশ সৃষ্টি হয়, তাই মাইটোসিসকে সদৃশ বিভাজন বা সমবিভাজন বা Equational Division বলে।

34. মায়োসিস (Meiosis) বলতে কী বোঝ?
 যে বিশেষ ধারাবাহিক প্রক্রিয়ায় যৌনজননক্ষম উদ্ভিদ ও প্রাণীর জনন মাতৃকোষে পরপর দুবার নিউক্লিয়াসের বিভক্তির ফলে প্রত্যেকটিতে মাতৃ-কোষের অর্ধসংখ্যক ক্রোমোজোমসহ চারটি পৃথক অপত্য জননকোষ বা গ্যামেটের সৃষ্টি হয়ে থাকে তাকে মায়োসিস বা রিডাকশান ডিভিশান বলে

35. কে প্রথম মায়োসিস পর্যবেক্ষণ করেন?
 সপুষ্পক উদ্ভিদের জননকোষে ১৮৮৮ খ্রীষ্টাব্দে স্ট্রাসবার্জার মায়োসিস প্রত্যক্ষ করেন।

36. মায়োসিস কোথায় দেখা যায়?
 অনুন্নত জীবের ক্ষেত্রে জাইগোট বা ভ্রূণাণুতে এবং উন্নত প্রাণীর শুক্রাশয় ও ডিম্বাশয়ের প্রাইমারি স্পার্মাটোসাইট ও প্রাইমারি ঊসাইট কোষে মায়োসিস বিভাজন হয়।

37. মায়োসিসের বিশেষত্বগুলি উল্লেখ করো।
 ১। মাতৃ-নিউক্লিয়াসের তুলনায় অপত্য নিউক্লিয়াসে ক্রোমোজোমের সংখ্যা অর্ধেক।
২। দুবার নিউক্লিয়াসের বিভাজন মায়োসিস প্রক্রিয়ার একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্য।
৩। মায়োসিস প্রক্রিয়ার ফলে পরবর্তী বংশধরের দেহে ক্রোমোজোমের সংখ্যা দ্বিগুণ না হয়ে নির্দিষ্ট থাকে।
৪। এই প্রক্রিয়ায় ক্রসিংওভারের সময় বাইভ্যালেণ্ট দুটি ক্রোমোজোমের মধ্যে ক্রোমাটিড খণ্ডের আদান-প্রদান ঘটে থাকে। এর ফলে জিনের বিন্যাসের পরিবর্তন ঘটে; এবং একে বলে জিনের রিকম্বিনেশান বা জিনের চরিত্রগত গুণের পুনর্বিন্যাস।

38. জিনের রিকম্বিনেশান বলতে কী বোঝ?
 মায়োসিস প্রক্রিয়ায় ক্রসিংওভারের সময় বাইভ্যালেণ্ট দুটি ক্রোমোজোমের মধ্যে ক্রোমাটিড খণ্ডের আদান-প্রদান ঘটে থাকে। এর ফলে জিনের বিন্যাসের পরিবর্তন ঘটে; এবং একে বলে জিনের রিকম্বিনেশান বা জিনের চরিত্রগত গুণের পুনর্বিন্যাস।

39. সাইন্যাপসিস কী?
 মায়োসিসের প্রোফেজ দশায় সমআকৃতি-বিশিষ্ট ক্রোমোজোমগুলি পরস্পর কাছাকাছি হয় এবং পাশাপাশি জোড় বাঁধে এই জোড় বাঁধাকে সাইন্যাপসিস বলে।

40. বাইভ্যালেণ্ট কী?
 মায়োসিসের প্রোফেজ দশায় সমআকৃতি-বিশিষ্ট ক্রোমোজোমগুলি পরস্পর কাছাকাছি হয় এবং পাশাপাশি জোড় বাঁধে। পাশাপাশি বিন্যস্ত জোড়া জোড়া ক্রোমজোমকে বাইভ্যালেণ্ট বলে।

41. সমসংস্থ ক্রোমোজোম কী?
 আকৃতি, জিন সজ্জারীতি, সেন্ট্রোমিয়ারের অবস্থান প্রভৃতি বৈশিষ্ট্যের উপর ভিত্তি করে পিতৃ ও মাতৃ ক্রোমোজোমদ্বয়কে সমসংস্থ বা Homologous chromosome বলে।

42. সিস্টার ক্রোমাটিড কী?
 বাইভ্যালেন্টে অবস্থিত সমসংস্থ ক্রোমোজোম জোড়ের প্রতিটি ক্রোমোজোম থেকে সৃষ্ট ক্রোমাটিড দুটিকে সিস্টার ক্রোমাটিড বলে।

43. নন-সিস্টার ক্রোমাটিড বলতে কী বোঝ?
 বাইভ্যালেন্টে অবস্থিত দুটি ভিন্ন সমসংস্থ ক্রোমোজোমের ক্রোমাটিডগুলিকে নন-সিস্টার ক্রোমাটিড বলে।

44. কায়াজমা কী?
 যে বিন্দুতে ক্রোমাটিডগুলি X চিহ্ন গঠন করে পরস্পরকে অতিক্রম করে তাকে কায়াজমা বলে।

45. ক্রসিংওভার কাকে বলে?
 সমসংস্থ ক্রোমোজোমের নন-সিস্টার ক্রোমাটিডদ্বয়ের মধ্যে খণ্ডাংশের বিনিময়কে ক্রসিং ওভার বলে।

46. মায়োসিস কে হ্রাস-বিভাজন বা রিডাকশনাল বিভাজন বলে কেন?
 উদ্ভিদ ও প্রাণী উভয় ক্ষেত্রেই পুং এবং স্ত্রী গ্যামেটের নিউক্লিয়াস মিলিত হলে ক্রোমোজোমের সংখ্যা দ্বিগুণ না হয়ে অপত্য কোষগুলিতে জন্মদাতা কোষের ক্রোমোজোম সংখ্যার অর্ধেক হয়ে যায়। ১৮৮৭ খ্রীষ্টাব্দে ভাইজম্যান প্রমাণ করেন উদ্ভিদ এবং প্রাণীর যে জনন-মাতৃকোষ থেকে পুং ও স্ত্রী গ্যামেট উৎপন্ন হয়, সেই জনন-মাতৃকোষেই হ্রাস-বিভাজন সম্পন্ন হয়।

47. বৃদ্ধি বলতে কী বোঝ?
 যে প্রক্রিয়ায় কতকগুলি শর্তের উপস্থিতিতে প্রোটোপ্লাজমের নিয়ন্ত্রণে উদ্ভিদ ও প্রাণী, তথা জীবদেহের আকার, আয়তন ও শুষ্ক ওজনের অপরিবর্তনী চিরস্থায়ী পরিবর্তন হ, তাকে বৃদ্ধি বলে।

48. জীবদেহে ওজন কয় প্রকার ও কী কী?
 দুই প্রকার। সরস বৃদ্ধি ও শুষ্ক বৃদ্ধি।

49. সরস ওজন বলতে কী বোঝ?
 সদ্যমৃত কিংবা জীবিত জীবদেহের ওজনকে সরস ওজন বলে।

50. শুষ্ক ওজন বলতে কী বোঝ?
 সদ্যমৃত কিংবা জীবিত জীবদেহকে ৭৫ ডিগ্রি সেণ্ট্রিগ্রেট উষ্ণতায় ২৪ ঘণ্টা রাখলে এর ৬০-৭০ ভাগ ওজন কমে যায় এবং ঐ অবস্থায় জীবদেহের ওজনকেই শুষ্ক ওজন বলে।


2 comments:

  1. Pdf form e dile qstn answr gulo khub vlo hoi jmon life science er qstn a swr tao pdf pele khub vlo hoto

    ReplyDelete

If you have any doubts. Please let me know